আজ সোমবার| ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১| ৫ আশ্বিন, ১৪২৮

শরীয়তপুরে হাতুরী পেটা করে টাকা ছিনতাই || মৃত ভেবে ফেলে রাখা হয় বৃদ্ধকে

বুধবার, ২৬ মে ২০২১ | ১১:৪৮ অপরাহ্ণ | 301 বার

শরীয়তপুরে হাতুরী পেটা করে টাকা ছিনতাই || মৃত ভেবে ফেলে রাখা হয় বৃদ্ধকে
আহত বৃদ্ধ

শরীয়তপুর সদর উপজেলার চর ডোমসার গ্রামের ছৈজদ্দিন সরদার ( ৮৫) নামের এক বৃদ্ধের কাছে থাকা ১ লক্ষ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে তাকে অপহরণ করে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার বিকেলে এঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পালং থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। আহত বৃদ্ধ শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্র জানায়, ছৈজদ্দিন সরদারের ছেলে মোঃ আলী সরদার বিদেশ থেকে এ লোকের মাধ্যমে এক লক্ষ টাকা পাঠায়। মঙ্গলবার (২৫ মে) বেলা তিনটার দিকে কোটাপাড়া থেকে সেই টাকা নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে আনসার মোল্লা ও জাহাঙ্গীর খান ছৈজদ্দিন সরদারকে কথা বলতে ডেকে নিয়ে ইজি বাইকে তুলে নেয়। তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায় উত্তর পালং গ্রামের আবুল মাদবরের ভাড়া বাড়িতে।

আবুল মাদবরের বাড়িতে আনসার মোল্লার ভাড়া নেওয়া ঘরে তাকে নিয়ে যাওয়ার পরে তাদের সাথে যোগ হয় আছিমন ও সুরাইয়া নামের আরো দুই নারী, চারজনে মিলে বৃদ্ধ ছৈজদ্দিন সরদারকে লোহার রড হাতুরী দিয়ে পিটিয়ে তার মাথা হাঁটুসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে গুরুতর জমখ করে মৃত ভেবে ঘরের মেঝেতে ফেলে রেখে তারা পালিয়ে যায়।

এরপর পালং মডেল থানার অন ডিউটি মোবাইল টিম খবর পেয়ে বিকেল পাঁচটার দিকে তাকে উত্তর পালং গ্রামের আবুল মাদবরের ভাড়া বাড়ি থেকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে তার আত্মীয় স্বজনের হাতে তুলে দেয়য়। পরে ছৈজদ্দিন সরদারকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে এনে ভর্তি করেন তার স্বজনরা।

অপহরনকারী আনসার মোল্লা বিনোদপুর ইউনিয়নের গয়াতলা গ্রামের মৃত হাসমত মোল্লার ছেলে ও জাহাঙ্গীর খান শৌলপাড়া ইউনিয়নের গয়ঘর গ্রামের লাল চাঁন খানের ছেলে। এছাড়া আছিমন আনসারের স্ত্রী ও সুরাইয়া বেগম জাহাঙ্গীরের স্ত্রী বলে জানাগেছে।

এ ঘটনায় আহতের ছেলে মোঃ আলীর স্ত্রী বাদী হয়ে চারজনের বিরুদ্ধে পালং মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আকতার হোসেন বলেন, আমরা অভিযোগ পেয়েছি, আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।


সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  
ফেইসবুক পাতা
error: কপি করা নিষেধ !!