আজ মঙ্গলবার| ২২ জুন, ২০২১| ৮ আষাঢ়, ১৪২৮

শরীয়তপুরে পিপি হত্যা মামলার ২০ বছর পর রায়, ছয় আসামীর মৃত্যুদণ্ড,

রবিবার, ২১ মার্চ ২০২১ | ৩:৩৯ অপরাহ্ণ | 889 বার

শরীয়তপুরে পিপি হত্যা মামলার ২০ বছর পর রায়, ছয় আসামীর মৃত্যুদণ্ড,
ফাইল ছবি

শরীয়তপুরে পিপি হাবিবুর রহমান ও তার ছোট ভাই মনির মুন্সি হত্যা মামলার ২০ বছর পর রায় দিয়েছে আদালত।
মামলার ছয় আসামিকে মৃত্যুদণ্ড, চারজনকে যাবজ্জীবন ও তিনজনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছেন বিচারক। মামলার আরও ৩৯ আসামিকে খালাস দেয়া হয়েছে। অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ শওকত হোসাইন রোববার দুপুরে এ রায় দেন।

ফাঁসির দণ্ড পাওয়া আসামিরা হলেন শাহিন কোতোয়াল, শহীদ কোতোয়াল, সফিক কোতোয়াল, মো. সোলায়মান, শহীদ তালুকদার ও মো. মজিবর। যাবজ্জীবন পাওয়ারা হলেন সরোয়ার হোসেন বাবুল তালুকদার, ডাবলু তালুকদার, বাবুল খান ও টোকাই রশিদ।

এছাড়া বিভিন্ন মেয়াদে মন্টু তালু, জাকির হোসেন মঞ্জু ও আসলাম সরদারকে সাজা দেয়া হয়েছে। আসামিদের মধ্যে পাঁচজন পলাতক রয়েছেন। যার মধ্যে দুইজন ফাঁসির দণ্ড পাওয়া।

২০০১ সালের ১ অক্টোবর জাতীয় নির্বাচনে শরীয়তপুর-১ আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোবারেক আলী সিকদার ও স্বতন্ত্রী প্রার্থী হেমায়েত উল্লাহ আওরঙ্গজেবের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে কয়েকটি কেন্দ্র স্থগিত করা হয়েছিল। পরে ৮ অক্টোবর ওই সব কেন্দ্রে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। তাই ভোটের আগে ৫ তারিখ হাবিবুর রহমানের বাস ভবনে আওয়ামী লীগের সভা চলছিল। ওই সভায় স্বতন্ত্র প্রার্থী হেমায়েতের সমর্থকরা হামলা চালিয়ে ব্রাশ ফায়ার করে হাবিবুর ও তার ছোট ভাই যুবলীগ নেতা মনির মুন্সিকে হত্যা করে। হাবিবুর রহমান ছিলেন আইনজীবি সমিতির সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। আর তার ভাই মনির মুন্সি ছিলেন পৌরসভা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।

হাবিবুর রহমানের স্ত্রী জিন্নাত রহমান হেমায়েতকে প্রধান আসামি করে ৫৫ জনের নামে হত্যা মামলা করেন। পুলিশ তদন্তে হেমায়েতর নাম বাদ দিয়ে ২০০৩ সালে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। মামলার বাদী আদালতে নারাজি দেন। আদালত ওই আবেদন নাকোচ করেন।

হেমায়েত পরবর্তী নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে মামলায় নানাভাবে প্রভাব বিস্তার করেন। ২০১৩ সালে ৩ আগস্ট সড়ক দুর্ঘটনায় হেমায়েত মারা যান। এরপর আদালত মামলাটি পুনরায় তদন্ত দেন। ২০১৩ সালে ৫৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আদালতে দেয় পুলিশ। ওই মামলার অন্য দুই আসামি শাহাজাহান মাঝি ও স্বান কোতোয়াল মৃত্যুবরণ করেছেন।


সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  
ফেইসবুক পাতা
error: কপি করা নিষেধ !!