আজ মঙ্গলবার| ২৬ অক্টোবর, ২০২১| ১০ কার্তিক, ১৪২৮

নড়িয়ায় করোনায় ইতালী প্রবাসীর বাবার মৃত্যু, সখিপুরে বোন ও ফুফুর বাড়ি লকডাউনে

রবিবার, ০৫ এপ্রিল ২০২০ | ১২:২৭ পূর্বাহ্ণ | 5684 বার

নড়িয়ায় করোনায় ইতালী প্রবাসীর বাবার মৃত্যু, সখিপুরে বোন ও ফুফুর বাড়ি লকডাউনে

শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার ডিঙ্গামানিক ইউনিয়নের থিরপাড়া গ্রামে করোনা ভাইরাসে নিহত আমানউল্লাহ বেপারীর ছোট ভাই আলাউদ্দিন বেপারীকে (৬০) তার বোনের বাড়িতে লক ডাউনে রাখা হয়েছে। শনিবার বিকেলে সখিপুর থানার ডিএমখালি ইউনিয়নের হকপুরের বাসিন্দা মৃত আজহারুল বেপারীর বাড়িতে তাকে লক ডাউনে রাখা হয়। একই সাথে আজহারুল বেপারীর পুরো পরিবারকেও লক ডাউনে রাখা হয়েছে। এছাড়া নিহতের মেয়ে সামিরা বেগমের পুরো বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। সামিরা সখিপুরের চরসেনসাস ইউনিয়নের বাসিন্দা শাহিন বালার স্ত্রী। ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে সখিপুর থানা পুলিশ তাদেরকে লকডাউনে পাঠায়।

স্থানীয় সুত্রে, সখিপুর থানা ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সুত্রে জানাগেছে, নড়িয়া উপজেলার ডিঙ্গামানিক ইউনিয়নের বাসিন্দা আলাউদ্দিন বেপারী ৪ দিন আগে সখিপুর থানার ডিএমখালী ইউনিয়নে তার বোন সখিনা বেগমের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। এদিকে আজ শনিবার সকাল ১০ টায় তার বড় ভাই আমানুল্লাহ বেপারী ঢাকার বক্ষ্যব্যাধি হাসপালে মারা যান। পরীক্ষায় তার দেহে করোনা ভাইরাসের নমুনা পজিটিভ পাওয়া যায়। পরে বিষয়টি নিয়ে পুরো জেলা জুড়ে হৈ-চৈ সৃষ্টি হয়। লক ডাউন করা হয় নিহত আমানুল্লাহ বেপারীর বাড়ি সহ আশের ২৪টি বাড়ি। আর বেড়াতে আসা তার ছোট ভাই আলাউদ্দিন বেপারীকে লক ডাউনে রাখা হয় সখিপুরে। সংস্পর্শে এসেছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে লক ডাউন করা হয় তার মেয়ে সামিরার বাড়িও।

সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জনাব এনামুল হক বলেন, নড়িয়ার আমানুল্লাহ বেপারীর করোনায় মৃত্যু ঘটেছে। তার সংস্পর্শে এসেছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে সখিপুরে তার স্বজনদের পরিবারকেও লকডাউনে রাখা হয়েছে।

ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানভীর আল নাসীফ বলেন, যেহেতু তারা করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছিল, সে কারনে তাদের দুই পরিবারকে লক ডাউনে রাখা হয়েছে। আমাদের সাথে মেডিকেল টিমও ছিলো। তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হবে। আশেপাশের লোকজনকে পরামর্শ দিয়েছি যাতে তাদের সংস্পর্শে না যায়।

উল্লেখ্য, আমানুল্লাহ বেপারী গত ১এপ্রিল হৃদরোগ জনিত সমস্যা নিয়ে নড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কম্প্লেক্সে ভর্তি হন। পরে সেখান থেকে তাকে ঢাকার বক্ষ্যব্যাধি হাসপাতালে রেফার করেন চিকিৎসকরা। শনিবার সকালে তার মৃত্যু হয়। পরে পরীক্ষা শেষে তার দেহে করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়। তার এক ছেলে মাস খানেক আগে ইতালি থেকে দেশে ফিরেছে।


সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  
ফেইসবুক পাতা
error: কপি করা নিষেধ !!